মন্দার মার

মন্দার মার

চারিদিকে একই আওয়াজ, মন্দা এল দেশে মন্দা মানেই নানা বিপদ, এল নানান বেশে। কেউ বা বলে মন্দা হলেও, কমছে মুদ্রা স্ফীতি কেউ বা বলে কমছে না দাম, এটা কেমন নীতি। মন্দা এখন ভয় দেখায় রোজ, বলে তোমায় খাব সব দেশেরই চিন্তা যে আজ, মুক্তি কোথায় পাব। মন্দার ফলে চাকরী যাচ্ছে, হচ্ছে গৃহ হারা সবাই ভাবছে এ কেমন রোগ,  সবাই যাবো মারা। মন্দার ভয়ে বিয়েও নাকি, বন্ধ হবে ত্বরা সবাই খুঁজতে ব্যস্ত ওষুধ, নয়তো যাবো মারা। বেতন এখন কমছে সবার, চাকরী যাচ্ছে রোজ কতলোক যে বেঘর হল,  রাখে কি কেউ খোঁজ?…

Read More

শেষ থেকে শুরু

শেষ থেকে শুরু

বৃষ্টি অফিসের কাজে দিল্লী গেছে কিন্তু দিল্লীতে যাওয়ার ইচ্ছে তার ঠিক ছিল না। যেহেতু সে দিল্লীর মেয়ে তাই জায়গাটাও তার পরিচিত বলে অফিস থেকে তাকেই পাঠানো হয়েছে। দিল্লীর নেহেরু প্লেসের এক অফিসে কাজ আছে তাই লাজপত নগরের বিক্রম হোটেলেই অফিস থেকে বুকিং করে দিয়েছে। (১) বৃষ্টির জন্ম ও পড়াশুনা দিল্লীতেই, তাই দিল্লীর রাস্তা ঘাট ওর কাছে খুব পরিচিত। দিল্লীর লোকেদের নার্ভও ওর ভাল ভাবে জানা। মনে পরে যায় সেই ছেলেবেলার কথা। বাবা, মা-র হাত ধরে ছুটির দিনে ইণ্ডিয়া গেটের সামনে বেড়াতে যাওয়া, মনে পরে সেই দিনগুলো যখন লোদী গার্ডেনের বা…

Read More

দৌড়

দৌড়

রবীন বাবু অল্প কিছুদিন হল চাকরী থেকে অবসর নিয়েছেন। চাকরী জীবনে অফিস আর ঘর, এ ছাড়া কিছুই জানতেন না। আজকাল দৌড় নিয়ে যে এত চিন্তা ভাবনা চলছে তা এতদিন বুঝতেই পারেন নি। মাঝেমধ্যে অবশ্য অফিস যাওয়ার পথে রোড ম্যারাথনের সন্মুখীন তাকে হতে হয়েছে। অবসরের পর কিছুদিন থেকেই ভাবছিলেন, দেহের মধ্যপ্রদেশটা যে ভাবে বেড়ে চলেছে তাতে কিছু একটা করতেই হবে। কিন্তু কিছুই করা হচ্ছিল না, শুধু মাত্র চিন্তা-ভাবনা ছাড়া।  পঞ্চবার্ষিকি পরিকল্পনা আর কি। কিন্তু হঠাৎ কোমরে, হাঁটুতে যন্ত্রণা শুরু হওয়াতে আর কোন উপায় না দেখে তাকে ডাক্তারের শরণাপণ্ণ হতেই হল। ডাক্তার…

Read More