সম্মোহন

সম্মোহন

কে কাকে এড়িয়ে চলে কে কাকে জড়িয়ে ধরে                       পথে কে কাকে মাড়িয়ে চলে কে কাকে আঁকড়ে ধরে                     রথে এ যেন গোলক ধাঁধা কে দেবে গোপনে বাধা                       রাতে কার হবে পরাজয় ছিনিয়ে কে নেব জয়                             দাঁতে সব যেন ভোজবাজি কে কত কাজের কাজি             …

Read More

লু

লু

শুধু     তোমার কথা শুনে দিন     কাটছে ঘাস গুনে জানি    হেরেই যাবো রণ আমার   অস্ত্র নেই তূণে তোমার   কথার মাঝে বিষ আমি     চাইনি দিতে কিস তবু      কাম প্রবণ মন ক্রোধে    জ্বলছে অহর্নিশ এখন   ঘরের ভেতর গড় তুমি    আপন হয়েও পড় আমি   তাই করেছি  পণ এবার   ছেড়েই দেব ঘর চলুক    চু কিত-কিত চু গুণিন    ব্যথায় দেবে ফুঁ তবু      হাড়েতে টনটন শরীর    ঝলসে দিল লু Saptaswa Bhowmikউল্লেখ করার মতো কোনো লেখক পরিচিতি আমার নেই। নিজস্ব উদ্যোগে ‘অনিকেত তথাগত’, ‘প্রেমে ও পরাগে’ এবং ‘উদাসীন অন্ধকার’ নামে তিনটি কাব্য-গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। এক সময় কিছু দৈনিক…

Read More

প্রতিবিম্ব

প্রতিবিম্ব

ক্রমাগত রক্তপাতে তপ্ত হতে হতে চিনে নিলে নিরাকার ছক আর ছবি কতটুকু জানে বল ঘর-ছাড়া কবি কার্নিশের কোণে ঝুলে আছে কোনো মতে নিরালম্ব শব্দ আসে স্তব্ধ কোনো রাতে কিছু তার অভিমান – কিছু ছেলেখেলা চোখের আড়ালে ছোটে সময়ের ভেলা মৃত্যু জানি সুনিশ্চিত নিষাদের হাতে নিদ্রাহীন রাতে যদি বৃষ্টি ঝেঁপে আসে কান পেতে শুনি তার অপরূপ গান বিন্দু বিন্দু জলকণা রাতের বাতাসে রেখে যায় বর্ণহীন কিছু অভিমান বিবাগী কাঙাল কবি শব্দ ভালোবেসে দর্পণের প্রতিবিম্বে খুঁজে চলে প্রাণ!  Saptaswa Bhowmikউল্লেখ করার মতো কোনো লেখক পরিচিতি আমার নেই। নিজস্ব উদ্যোগে ‘অনিকেত তথাগত’, ‘প্রেমে ও পরাগে’…

Read More

শোক

শোক

ঘুমের ভেতরে ঘুম ডেকে নেয় তাকে বালিশ বিছানা সব ছিল পরিপাটি ভেজাল ছিল না মনে সব ছিল খাঁটি তবু পথ থেমে গেল যৌবনের বাঁকে জল-ভরা কিছু মেঘে শোক মিশে থাকে তার ছায়া খুঁজে চলে একলা দোপাটি গ্রহণের ছায়া বুকে পাথরের বাটি চোখের আড়াল থেকে অবিরাম ডাকে   দিন আসে দিন যায় নিথর সময় ভেতরে ভেতরে শুধু বেড়ে চলে ক্ষয় দোপাটির ডালপালা নুয়ে আছে শোকে দূর থেকে মনে হয় অভিমানী সুধা এত প্রেম কেন তুমি দিয়েছ বসুধা কি করে নিজের ঘরে নিয়ে যাব ওকে Saptaswa Bhowmikউল্লেখ করার মতো কোনো লেখক পরিচিতি…

Read More

অণু সপ্তক

অণু সপ্তক

যক্ষ সুখের ঘরে সখের ধন লুকিয়ে রাখি সারাক্ষণ খুলতে গেলে বন্ধ দ্বার দৌড়ে আসে অন্ধকার ======================== স্পর্শ প্রতিরোধ এখানে অচল প্লাবনের বাধ ভাঙা জল অতলে গভীরে শুধু ডাকে শরীর শরীরে ছবি আঁকে ====================== তৃষ্ণা  তোমাকে পোড়াবে এই তাপ ভেতরে বাইরে যত পাপ পাললিক শিলা হয়ে জমে স্নানে কারো তৃষ্ণা কি কমে ?   ============================= জ্বর নীরবতা রাতের চাদর শরীরের গোপন আদর পুড়ে যায় নিষিদ্ধ জ্বরে অকারণে তোকে মনে পড়ে ========================= দাগ কারণে বা অকারণে হোক কিছু কাঁটা বিঁধে যাবে পায় ভুলে যাবে ব্যথা আর শোক দাগ তবু দাগ থেকে যায়…

Read More

মন্থন

মন্থন

নীরবতা কত কথা বলে ছলে বলে অথবা কৌশলে অভিমানে সময় নিথর জলের উপরে যার ঘর তার কেন বানে জলে ভয় ফিরে আয় উধাও সময়   সব পথ মুখ গুঁজে আছে সময় এখানে অসহায় জমে থাকা জল নয় তবু আগুনের তাপে গলে যায় তার পর বুকে হেঁটে চলা দেখে শুধু রাত জাগা কবি ভূত হয়ে কথা ফিরে আসে জেগে ওঠে মৃত সব ছবি   মুহূর্তকে টুকরো করে ছবি প্রথম প্রেমে সবাই বুঝি কবি শিকড় নীচে উপরে ডালপালা চোখের নীচে স্বপ্ন কথামালা কাজল রাতে জ্বালিয়ে রাখে দীপ সময় হ্রদে যেই ফেলেছি ছিপ খুঁজে…

Read More

পথ পালটে যায়

পথ পালটে যায়

  নেশার ঘোরে জড়িয়ে আছো বন্ধন এখন শুধু বাসি ফুলের গন্ধ হয়তো শুরু করতে হবে তর্পণ নদীর জলে ভাসিয়ে দিয়ে দর্প   ভুলের ফাঁদে পিছলে গেলে রাস্তায় ফুরিয়ে যাবে নিজের প্রতি আস্থা দাঁড়িয়ে গেলে জমেই যাবে ঠাণ্ডায় মিইয়ে যাবে শেখানো সব ফাণ্ডা   গাছের মত আলোর টানে বৃদ্ধির উপায় নেই যা কিছু থাক সিদ্ধি ভুলেও যদি সুযোগ খোঁজো পাঙ্গার বিপদ এসে করবে নিজেই নাঙ্গা   ভজন গানে মুখর ছিল প্রাঙ্গণ হঠাৎ করে আসর হল সাঙ্গ পথের ধারে দেখলে সুখী প্রান্তর বুঝতে হবে আদতে সব ভ্রান্ত   আলোর থেকে ছিনিয়ে নিতে…

Read More

শব ব্যবচ্ছেদ

শব ব্যবচ্ছেদ

        প্রথমে শরীর থেকে পৃথক করছি তোমার পোশাক তারপর অনেক কষ্টে তুলে নিয়েছি চামড়া রক্তাভ মাংসের বিবর্ণ হাসিতে লুপ্ত লিপির হাহাকার তবু ধারালো ছুরির ম্যাজিকে সমস্ত মাংস উধাও শুধুই কংকাল কাঠামো   তোমার ২০৬ টি হাড় গুনে গুনে থলিতে ভরেছি শরীরের সম্পূর্ণ অ্যানাটমি আমার হাতের মুঠোয় কিন্তু এত চেষ্টা করেও কোথাও তোমাকে খুঁজে পেলাম না অথচ তোমাকে খুঁজে পেতেই এই জটিল কষ্টকর শব ব্যবচ্ছেদ Saptaswa Bhowmikউল্লেখ করার মতো কোনো লেখক পরিচিতি আমার নেই। নিজস্ব উদ্যোগে ‘অনিকেত তথাগত’, ‘প্রেমে ও পরাগে’ এবং ‘উদাসীন অন্ধকার’ নামে তিনটি কাব্য-গ্রন্থ প্রকাশিত…

Read More

মন্থন

মন্থন

নীরবতা কত কথা বলে  ছলে বলে অথবা কৌশলে অভিমানে সময় নিথর জলের উপরে যার ঘর তার কেন বানে জলে ভয় ফিরে আয় উধাও সময় সব পথ মুক গুঁজে আছে সময় এখানে অসহায় জমে থাকা জল নয় তবু আগুনের তাপে গলে যায় তার পর বুকে হেঁটে চলা দেখে শুধু রাত জাগা কবি ভূত হয়ে কথা ফিরে আসে জেগে ওঠে মৃত সব ছবি মুহূর্তকে টুকরো করে ছবি প্রথম প্রেমে সবাই বুঝি কবি শিকড় নীচে উপরে ডালপালা চোখের নীচে স্বপ্ন কথামালা কাজল রাতে জ্বালিয়ে রাখে দীপ সময় হ্রদে যেই ফেলেছি ছিপ খুঁজে পেলাম…

Read More

বিপ্লব

বিপ্লব

আমি বোতলে পুরেছি কান্না আমি অনাহারে খুঁজি দম্ভ আমি চাইনি সবুজ পান্না আমি ভেঙেছি স্মৃতির স্তম্ভ আমি হাবভাবে নেই সন্ন্যাস আমি আদতে বিষয়ী বুদ্ধি আমি তুষের আগুনে উল্লাস আমি নিরাময়-হীন শুদ্ধি আমি সময়ের চোখে ডাস্টবিন আমি বিবেকের কাছে উৎপাত আমি বাকির ফাঁকির ক্যানটিন আমি বিপ্লব চেয়ে চিৎপাত Saptaswa Bhowmikউল্লেখ করার মতো কোনো লেখক পরিচিতি আমার নেই। নিজস্ব উদ্যোগে ‘অনিকেত তথাগত’, ‘প্রেমে ও পরাগে’ এবং ‘উদাসীন অন্ধকার’ নামে তিনটি কাব্য-গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। এক সময় কিছু দৈনিক ও ক্ষুদ্র পত্রিকায় কিছু কবিতা, ছড়া, প্রবন্ধ ও অণু-গল্প প্রকাশিত হত। কিছুদিন হল সে সব…

Read More
Page 1 of 2
1 2